বুধবার ১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>
এম এ মান্নান প্রাথমিক মেধাবৃত্তির পুরস্কার বিতরণে এম এ মান্নান এমপি

গ্রামের গরিব অসহায় মানুষগুলো আইনের ফাঁকে পড়ে কষ্ট ভোগ করেন

শান্তিগঞ্জ প্রতিনিধি   |   শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪   |   প্রিন্ট   |   443 বার পঠিত

গ্রামের গরিব অসহায় মানুষগুলো আইনের ফাঁকে পড়ে কষ্ট ভোগ করেন

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবেক পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, আইন আছে, কিন্তু সেগুলো গরিব মানুষের জন্য, বড়লোকেরা বিভিন্নভাবে আইনের হাত থেকে রক্ষা পায়। কিন্তু গ্রামের গরিব অসহায় মানুষগুলো সেই আইনের ফাঁকে পড়ে কষ্ট ভোগ করেন। আমাদের সবার আগে মানুষ হতে হবে, মানবিক মানুষ হতে হবে। কোমল হৃদয়ের মানুষ হতে হবে। পশু পাখি সবার প্রতি মানুষ হিসেবে সদয় থাকতে হবে। তাহলেই সমাজ থেকে অন্যায় অবিচার দূর হবে।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টায় সুনামগঞ্জ জেলার শান্তিগঞ্জ উপজেলার ডুংরিয়া উচ্চবিদ্যালয়ে মাছরাঙা অডিটোরিয়ামে, উত্তরণ ক্লাবের আয়োজনে, এম এ মান্নান প্রাথমিক মেধাবৃত্তির পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এম এ মান্নান এমপি আরও বলেন, ধনী ব্যক্তিরা গরিব অসহায় মানুষকে ঠকিয়ে আরও বড়লোক হতে চায়। তারা সম্পদের পাহাড় বানিয়ে এই পৃথিবীতে চলাফেরা করেন। একটি বারও ভাবেন না, এই সম্পদ দিয়ে কি হবে? মরার পরে কেউ সম্পদ নিয়ে ঐ পাড়ে যেতে পারেন না। আমাদের আরও ভাবতে হবে। যারা মানুষের হক মেরে খাই তারা প্রকৃত মানুষ নয়।

 

 

 

তিনি বলেন, আমার পৈতৃক ভিটাটিও আমি সরকারের নামে দান করেছি, সেখানে একটি ভোকেশনাল টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট নির্মাণ করা হয়েছে। এখন আমার অবশিষ্ট যে ৩৫-৪০ কেদার জমিগুলো আছে সেগুলোও আজ আমি দান করে যাচ্ছি, এই এম এ মান্নান প্রাথমিক মেধাবৃত্তির নামে। যেন আমি মারা যাওয়ার পরে এই মেধাবৃত্তির কার্যক্রম থেমে না থাকে। এখন আমার আর কিছুই রইল না। আমি মুক্ত, নিজেকে এখন খুব হালকা লাগছে। শান্তিগঞ্জে এখন একটি টিনশেড বাড়ি আছে, সেটিতে আমার একমাত্র ছেলে থাকবে। আপনারা যদি তাকে সেই সুযোগ দেন, তাহলে সে আপনাদের পাশে থাকবে। চলে গেলে, পিতা হিসেবে তার কাছে আমার অনুরোধ সেই বাড়িটিও যেন কোন ভালো কাজে সে দান করে দেয়। আমার আর কিছু নাই। চাওয়া পাওয়াও নাই। আমার মৃত্যুর পরে যেন, আমার কবরটিও আমার গ্রামের বাড়িতে হয় সেই অনুরোধ টুকুও রইল সবার প্রতি।

অনুষ্ঠানে ডুংরিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মদন মোহন রায়ের সভাপতিত্বে, শিক্ষার্থী সাইমা ইসলাম এবং তাহসিন আহমদের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডুংরিয়া উত্তরণ ক্লাব সভাপতি মনিরুজ্জামান সুজন বারী।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সমর চন্দ্র পাল, শান্তিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুকান্ত সাহা, জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বশিরুল ইসলাম, সুনামগঞ্জ জেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মাহবুব জামান, এম এ মান্নানের ছেলে সাদাত মান্নান অভি, শান্তিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান শেষে শান্তিগঞ্জ, জগন্নাথপুর ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার বৃত্তিপ্রাপ্ত ৭৫ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে মেধা তালিকায় প্রথম ও দ্বিতীয় গ্রেডে সার্টিফিকেটসহ পুরস্কারসামগ্রী বিতরণ করেন এম এ মান্নান এমপি।

Facebook Comments Box

Posted ৬:৫২ অপরাহ্ণ | শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ajkersangbad24.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

এ বিভাগের আরও খবর

সম্পাদক
ফয়জুল আহমদ
যোগাযোগ

01712000420

fayzul.ahmed@gmail.com